পৃথিবীর কথা | এসএম পি’র ট্রাফিকের ডিসি ফয়ছল মাহমুদ ও এডিসি জ্যোতির্ময় কে প্রত্যাহারের দাবি শ্রমিক ঐক্য পরিষদের। ca-pub-3266865189993050

এসএম পি’র ট্রাফিকের ডিসি ফয়ছল মাহমুদ ও এডিসি জ্যোতির্ময় কে প্রত্যাহারের দাবি শ্রমিক ঐক্য পরিষদের।

Spread the love
Advertisements
Loading...
Advertisements
Loading...

সিলেট মহানগর ট্রাফিকের ডিসি ফয়ছল মাহমুদ ও এডিসি জ্যোতির্ময় সরকারকে প্রত্যাহারের দাবিসহ ৬ দফা দাবী আদায়ের লক্ষ্যে সিলেট জেলা প্রশাসক কাজী এমদাদুল ইসলামের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেছে সিলেট জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ঐক্য পরিষদের নেতৃবৃন্দ।

মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) দুপুর ১২টায় জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে এক সংক্ষিপ্ত আলোচনার মাধ্যমে এ স্মারকলিপি প্রদান করে শ্রমিক নেতৃবৃন্দ।

সিলেট জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি আবু সরকার, সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া আহমদ, কার্যকরি সভাপতি মতছির আলী, সহ-সভাপতি মো. রুনু মিয়া, ট্যাংকলরির সভাপতি মনির মিয়া, সিলেট জেলা ট্রাক পিকআপ ক্যাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়ন ২১৫৯ এর সাধারণ সম্পাদক আমির উদ্দিন, হিউম্যান হলার ইমা লেগুনার সভাপতি হাজী রুনু মিয়া মঈন, সাধারণ সম্পাদক ইনসান আলী, ঐক্য পরিষদের প্রচার সম্পাদক মোহাম্মদ আলী, হারিছ মিয়া, কার্যকরি সদস্য লিটন মিয়া, আলতাফ হোসেন চৌধুরী স্মারকলিপি প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন।

Loading...

মতবিনিময়কালে শ্রমিক পরিবহন নেতৃবৃন্দ বলেন, সিলেট জেলার অভ্যন্তরে নির্দিষ্ট গাড়ি পার্কিং ব্যবস্থা না থাকা ট্রাফিক পুলিশ কতৃক হয়রানি মাত্রাতিরিক্ত হারে জরিমানা আদায়, রেকারিং বাণিজ্য শ্রমিক নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের, মেয়াদ উত্তীর্ণ সেতু সমূহে এখন পর্যন্ত টোল আদায় বন্ধ, বিভাগীয় শহরে ট্যাংকলরি টার্মিনাল না থাকা, সিএনজি চালিত অটোরিক্সায় গ্রীল সংযোজনের সিদ্ধান্ত সহ বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের দাবী জানানো হয়।

Advertisements
Loading...

৬ দফা দাবীগুলোর মধ্যে রয়েছ (১) সিলেট মহানগর ও জেলায় পিকআপ, সি.এন.জি অটোরিক্সা, কার, লাইটেস, হিউম্যান হুলার, লেগুনা গাড়ি সহ সকল প্রকার যানবাহনের নির্দিষ্ট পার্কিং স্থান বরাদ্ধ, (২) সড়ক পরিবহণ আইন-২০১৮ এর সংশোধন সহ বিধিমালা প্রণয়নের পূর্ব পর্যন্ত এই আইনে ট্রাফিক পুলিশ কতৃক মামলা দেওয়া এবং মাত্রাতিরিক্ত হারে জরিমানা বন্ধ করা ও ট্রাফিক পুলিশ কতৃক রেকারিং বাণিজ্য সহ সকল প্রকার ট্রাফিক হয়রানি বন্ধ করা। লামাকাজী সেতু, শেরপুর সেতু, ফেঞ্চুগঞ্জ সেতু, শেওলা সেতু ও শাহপরাণ সেতুর টুল আদায় বন্ধ করা, (৩) পরিবহণ শ্রমিক নেতাদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত সকল মিথ্যা মামলা সহ পুলিশ এসল্ট মামলাগুলি প্রত্যাহার করা (৩) (৪) সিলেটে সিএনজি চালিত অটোরিক্সা চলাচলে নীতিমালা প্রণয়নের পূর্ব পর্যন্ত গ্রীল সংযোজনের সিদ্ধান্ত বাতিল, বাদাঘাট বাইপাসের কাজ দ্রুত বাস্তবায়ন করা, (৫) উপ-পুলিশ কমিশনার ফয়ছল মাহমুদ (ডিসি ট্রাফিক) ও এডিসি জ্যোতির্ময় সরকারকে প্রত্যাহার করা, (৬) সিলেট বিভাগীয় শহরে ট্যাংকলরির টার্মিনাল স্থাপন করা।

এই ৬ দফা দাবী আগামী ৬ই এপ্রিলের মধ্যে বাস্তবায়ন না হলে, আগামী ৭ই এপ্রিল হতে সিলেট জেলার সর্বস্তরের পরিবহন শ্রমিকরা ৪৮ কর্মবিরতী পালন করবে।

সর্বশেষ নিউজ