পূর্ব শত্রুতার জের ধরে কানাইঘাট সীমাবাজারে যুবকের হাত ভেঙ্গে দিয়েছে প্রতিপক্ষ : মাথায় ১৬টি সেলাই।

মে ২৮ ২০২১, ২০:১৫

Spread the love

কানাইঘাট প্রতিনিধিঃ- কানাইঘাট উপজেলার সীমাবাজারে প্রতিপক্ষের হামলায় মারাত্মক ভাবে আহত হয়েছেন মৃত আয়ূব আলীর ছেলে কামাল উদ্দিন (৪৫) নামের এক নিরিহ ব্যক্তি। জানা যায় বৃহষ্পতিবার (২৭ মে) বিকেলে কানাইঘাটের গাছবাড়ি অঞ্চলের সীমাবাজারস্থ পাঁচপীরের মোকাম সংলগ্ন এলাকা অতিক্রমকালে যুবক কামাল উদ্দিনের ওপর অতর্কিভাবে সাবেক মেম্বার হারুনের লোকজন হামলা করে।
আহত কামালের ছোট ভাই হেলাল আহমদ জানান- আমার নিরিহ নিরস্ত্র বড় ভাই পাঁচপীর মসজিদে আসরের নামাজের পর বাড়ি ফিরছিলেন। এতে হঠাৎ করে মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে মোশতাক (৩০) এর নেতৃত্বে সাহেদ, কবির, অনসার, লুৎফুর, সুলতান, শিব্বিরসহ বেশ কয়েকজন সন্ত্রাসীরা চাপাতি দা, কোড়াল ও রামধা নিয়ে কামালের ওপর হামলে পড়ে। এতে আমার বড় ভাই কামালের ডান হাত ভেঙ্গে যায়। এতে যুবক মারাত্মকভাবে আহত হন। মাথায় বেদড়ক কুপিয়েছে সন্ত্রাসীরা। ১৬টি সেলািই লেগেছে কামালের মাথায়। তা ছাড়া শরীরের বিভিন্ন জায়গায় চাপাতি দা‘র জখম রয়েছে।

গুরুতর আহত অবস্থায় কামালকে নিয়ে কানাইঘাট থানা পুলিশের কাছে মামলা করতে গেলে স্থানীয় পুলিশ কামালের স্বজনকে বলেন- পরে মামলা করবেন, আগে আহত কামালকে হাসপালে ভর্তি করে চিৎিসার ব্যবস্থা করেন। পুলিশের পরামর্শে এখন কামাল সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ৩য় তলার ১১নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধিন রয়েছেন। এ রপিার্ট লেখা পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছে।

উল্লেখ্য- ২০১৭ সালে কামালদের বাড়ির পাশে নিজ জমিতে মাছধরা নিয়ে হারুন মেম্বার (সাবেক) গোষ্টির সাথে মৃত আয়ূব আলী গোষ্টির কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে হাতাহতিও হয়। তখন স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও সালিশ ব্যক্তিগন বিষয়টি নিষ্পত্তি করে দেন। স্থানীয়রা বলছেন ঐ পূর্ব শত্রুতার জের ধরেই নিরিহ কামালের ওপর আক্রমন করা হয়েছে।

সর্বশেষ নিউজ