পৃথিবীর কথা | জাফলংয়ে পালিত মেয়ে শিল্পীর যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ গ্রামবাসী সহ পালিত পিতার পরিবার। ca-pub-3266865189993050

জাফলংয়ে পালিত মেয়ে শিল্পীর যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ গ্রামবাসী সহ পালিত পিতার পরিবার।

Spread the love
Advertisements
Loading...
Advertisements
Loading...

গোয়াইনঘাট প্রতিনিধিঃ- সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার ৩নংপূর্ব জাফলংয়ে পালিত মেয়ে শিল্পীর যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ মা বাবা সহ একটি পরিবার। মনোয়ারা বেগম জানায় আমি সহ আমার পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতেছি।

জাফলংয়ের পাথর টিলা গ্রামের বাসিন্দা মনোয়ারা বেগম, বলেন আমি একজন অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী ও ৩নং পূর্ব জাফলং ইউনিয়ন ৩/৪/৫/নং ওয়ার্ড সাবেক ইউ/পি সদস্য এবং আমি একজন আইন মান্যকারী প্রকৃতির নারী।

শিল্পি আমার পালিত মেয়ে হয়।আমার সন্তানাদি না হওয়ায় স্বাক্ষী কমলা বেগম আমার পূর্ব পরিচিত হওয়ার সুবাদে আনুমানিক ৩৫ বৎসর পূর্বে শিল্পিকে আমি পালক হিসাবে আমার কাছে নিয়ে আসি আমার নিজ বাড়িতে। পরবর্তী তাকে লালন পালন সহ তাঁর সব দায় দায়িত্ব আমি বহন করি এবং অনুমান ১৫বছর পূর্বে শিল্পিকে ইসলামী শরীয়াহ মোতাবেক বিবাহ দেই।

বিবাহের পর থেকেই শিল্পি আমাকে বিভিন্ন অপকৌশল অবলম্বন করে আমার কাছ থেকে প্রায় সময় টাকা পয়সা নিত। শিল্পি খুবই খারাপ, দাঙ্গাবাজ, বিশৃঙ্খলাকারী, উশৃংখল ও মাদক সেবনকারী প্রকৃতির নারী। তাছাড়া শিল্পি প্রায় সময় আমার বসত বাড়ীতে এসে আমার কাছে টাকা পয়সা দাবি করে আমি শিল্পিকে টাকা পয়সা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে শিল্পি অহেতুক আমার নাম ধরে অশ্লীল ভাষায় গালি’গালাজ সহ আমাকে ও আমার পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের বিভিন্ন ভাবে ক্ষতি করবে বলে হুমকি ধামকি প্রদান করে।আমি পূর্বে শিল্পিকে ০৩ বারে স্টাম্পের মাধ্যমে সর্বমোট ৯,১৫০০০/-(নয় লক্ষ পনেরো হাজার) টাকা প্রদান করি টাকা শিল্পি গুনিয়া বুজিয়া সমজিয়া গ্রহণ করে বলেন, আমার সম্পত্তিতে তাহার আর কোনো দাবি দাওয়া নাই বলিয়া অঙ্গীকার নামায় তাহার স্বাক্ষর করে যায়।

Loading...

উৎপ্রেক্ষিতে শিল্পি আমাকে সহ আমার ছেলে মনির হোসেনকে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন স্থানে একাকী অবস্থায় দখিতে পাওয়া মাত্র অহেতুক আমাদের নাম ধরে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ সহ আমাদেরকে আরো বিভিন্ন ভাবে ক্ষতি করিবে বলে হুমকি প্রদান করে। উক্ত বিষয় সালিশ বৈঠক বসাইলে শিল্পি সালিশান ব্যাক্তিবর্গগনদেরকেও বিভিন্ন ধরনের হুমকি প্রদান করে।

Advertisements
Loading...

এরই ধারাবাহিকতায় ইংরেজি ২০/০৫/২০২১ তারিখ রাত অনুমান -১০ঘটিকার সময় ঘটনাস্থল গোয়াইনঘাট থানাধীন ৩নং পূর্ব জাফলং ইউনিয়নের অন্তর্গত পাথরটিলা আমার বসত বাড়ীতে শিল্পি আসিয়া আমাকে দেখিতে পাইয়া আমার নিকট টাকা পয়সা দাবি করে আমি শিল্পিকে টাকা পয়সা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে শিল্পি আমার নাম ধরে অহেতুক অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে। আমি

আমি শিল্পিকে এহেন কার্যকলাপের কারণ জিজ্ঞাসাবাদ করিলে শিল্পি আমাকে এলোপাতাড়ি ভাবে কিল,ঘুষি,লাথি মারিয়া শরীরের বিভিন্ন স্থানে নিলা ফুলা হেচা জখম করে ও আমার চুলের মুঠু ধরিয়া মাটিতে ফেলে দেয় এবং আমাকে প্রাণে হত্যার উদ্দেশ্যে তাঁর দুই হাত দ্বারা আমার গলায় চেপে ধরে শ্বাসরুদ্ধ করার চেষ্টা করে। আমাকে রক্ষা করার জন্য উপরোক্ত স্বাক্ষীগণ সহ ছেলে মনির হোসেন এগিয়ে আসে শিল্পি আমার ছেলে মনির হোসেনকেও মারধর করার জন্য উদ্ধৃত্ত হয়।আমাদের শোর চিৎকারে আশ-পাশের লোকজন আগাইয়া আসিতে থাকে শিল্পি আমাকে সহ আমার পরিবারের অন্যান্য সদস্যদেরকে পরবর্তী সময়ে সুযোগমতে পাইয়া প্রাণে হত্যা করিবে বলে হুমকি প্রদান করে যায়। বর্তমানে শিল্পির ভয়ে এহেন কার্যকলাপে আমি সহ আমার পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতেছি। বিষয়টি এলাকার লোকজনদেরকে জানাইয়া ও আমার আত্নীয় স্বজনদের সহিত আলাপ আলোচনা করিয়া গোয়াইনঘাট থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করিতে বিলম্ব হই।

উক্ত বিষয়ে জানতে চাইলে গোয়াইনঘাট থানার তদন্ত ওসি দিলিপ কান্ত, জানান শিল্পি নামের এই মহিলাটির নামে এর আগেও থানায় অভিযোগ আমাদের কাছে আছে আবার নতুন করে একটি অভিযোগ পেয়েছি সরেজমিনে পরিদর্শন করে তদন্ত করা হয়েছে খুব দ্রুত দোষীদের আইনের আওতায় আনার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।