পৃথিবীর কথা | বড়লেখায় অমানুষিক নির্যাতন

বড়লেখায় অমানুষিক নির্যাতন

জুলাই ১১ ২০২১, ১২:৫৭

Spread the love

বড়লেখা প্রতিনিধি:: মৌলভীবাজার, বড়লেখা উপজেলার হাটবন্দ গ্রামে, মৃত মনজ্জীর আলীর স্ত্রী পিয়ারা বেগম (৭২) কে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে, বড় ছেলের স্ত্রী ও বিয়ানীবাজার কাঙ্গলী গ্রামের মৃত ফাতির আলীর মেয়ে, এবাদ ও অলিউর রহমানের বোন সায়েদা আক্তার সাকি (৩৬) ২০০১ সালে পিযারা বেগমের পুত্রবধূ হয়ে আসেন, দীর্ঘ ১৩-১৪ বছর যাবত বড় ছেলে সিলেট থাকার কারণে, অমানুষিক নির্যাতন করে আসছে শাশুড়িকে এবং মন মন্ত্র ভুলাই করে, হাত করে নিয়েছে দেবর কবিরকে, ভাবির কানমন্ত্রে মাকে সব ধরনের খরচ থেকে বঞ্চিত এবং নির্যাতন করে আসছে ছেলে কবির আহমেদ, গত ১০-০৭-২০২১ ইং রোজ শনিবার বিকাল অনুমানিক ৫ ঘটিকার সময় পারিবারিক কথাকাটাকাটি হলে, উভয় দুজন মিলে মা ও শাশুড়িকে অমানুষিক নির্যাতন ও মাইর পিট করে, মায়ের আত্মচিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে আসিয়া বড়লেখা সরকারি হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসার পরে, মা নিজে বাদী হয়ে ছেলে কবির আহমেদ (২৮) পুত্রবধূ শাহেদ আক্তার সাকি (৩৬) কে আসামি করে বড়লেখার থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন, এ বিষয়ে বড়লেখা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার জানান অভিযোগ পেয়েছি আইনগত ব্যবস্থা নিচ্ছি, বলে সাথে সাথে রাতে এস আই নজরুল ইসলামকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করার জন্য পাটিয়ে দেওয়া হয় এবং আসামী কবির আহমেদ ঘটনার পরপরই পালিয়ে যায়। পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

সর্বশেষ নিউজ